শিহাব শাহরিয়ার-এর কবিতা

শিহাব শাহরিয়ার-এর কবিতা

অদৃশ্যগুচ্ছ

১.

খড়ের রঙ তাড়া করে বিকেল

বাজপাখির পাখায় জড়িয়ে থাকে

শিকারির হাত

২.

চর্যার বালিকার নাকফুল

ঝুলে থাকে মধ্যরাতের টেবিলে…

…এরপর ফুল্লরার ঘুম

৩.

আত্মহত্যার আঙুল ভেঙে গেলে

নদী-ঢালে নির্মিত রোদেরা

বন্দি হয় হ্যান্ডসেটে

৪.

তোমার চতুর চোখগুলো

আমার সম্মুখে ছুটেছিল বলে

আমি কার্নিশের কাঠে বার্নিশ করেছি

৫.

নালার নির্জন শরীরে পড়েছিল

পালকের ধবল শ্বাসÑ তুমি পারোনি

খেলতে জ্যোৎস্নার খেলা

৬.

ব্যাধিগ্রস্ত শরীর জেগে

ওঠে দৈনন্দিন অভ্যাসে

আমরা কেন যাই না তবে দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে

৭.

রাত্রিরা যদি মায়াবিনী হয়

তুমি তবে কেন মেতে ওঠো

জন্মনেশায়

৮.

ডট ডট ডট …

ডগার ঘামগুলো

মিশে গেছে আজ রমণীয় নিঃসঙ্গতায়

৯.

অভিমানের হাওয়ারা ছুটেছিল বলে

প্রণয়ের পাত্র থেকে

ঝরে গেছে চোখ

১০.

কাশফুলের সাদা হেমন্তের সাথে

যদি না ওড়ে নদী

অভিমানে দীর্ণ দাঁতে শুয়ে থাকে নগ্ন স্তন

১১.

অভিশাপের তুফানে বরফ গলেছিল

তুমি সাঁতার কেটেছো সাদা অন্ধকারে

মিশরের মমির মতো

১২.

ঘাঘরার গন্ধ থেকে

তুমি গ্রহণ করেছিলে শাড়ি

আড়িপাতা চুম্বনেরা তোমাকে ধরেছিল…

১৩.

বেলুনেরা বাতাসে উড়ে গেলে

উপরের আকাশ-খিড়কি দিয়ে

তারা আর তাকায় না পিছনে

১৪.

রৌদ্রকিরণে ভিজে ভিজে

তামাসম তুমিও তাকাও না

পোড়া দগ্ধ হৃদয়-গ্রহের দিকে

১৫.

সকালের রোদেরা আছড়ে পড়লে

জানালারা নগ্ন হয়

অন্ধকারের ছায়াতল থেকে

CATEGORIES
TAGS
Share This

COMMENTS

Wordpress (0)